উদ্বোধন হলো রাশিয়ার উত্তরাঞ্চলের প্রথম মসজিদ | islam.bdview24.com : The Religion of Islam

উদ্বোধন হলো রাশিয়ার উত্তরাঞ্চলের প্রথম মসজিদ


রাশিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর আরখাংগেলস্ক (Arkhangelsk) এর প্রথম মসজিদটির উদ্বোধন করা হয়েছে। স্থানীয় সময় শনিবার বিকেলে শহরটির কেন্দ্রস্থলে এ মসজিদটির উদ্বোধন করা হয়। 

বার্তা সংস্থা ইরনা জানায়, মসজিদটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যালেন রাশিয়া-১ সরাসরি সম্প্রচার করে। এ সময় চ্যালেনটি আরখাংগেলস্ক শহরে প্রথম মসজিদ উদ্বোধনের ঘটনাকে রাশিয়ার মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য ‘বিশাল ঘটনা’ বলে উল্লেখ করে। 

সংবাদে বলা হয়, স্থানীয় ইসলামি সংস্থা ‘নূর ইসলাম’ ২০১২ সালে উত্তর রাশিয়ার স্থাপত্যরীতির সঙ্গে মিল রেখে এই মসজিদের নির্মাণকাজ শুরু করেছিল। মসজিদটির ভেতরে একসঙ্গে ১০০ জন এবং বাইরের চত্বরে ৫০০ থেকে ৬০০ জন নামাজ আদায় করতে পারবে।   

আরখাংগেলস্ক জামে মসজিদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাশিয়ার প্রধান মুফতি রাউয়িল আইনুদ্দিন, তাতারস্থানের প্রেসিডেন্ট রুস্তম মিনিখানভ এবং আরখাংগেলস্ক প্রদেশের গভর্নর ইগোর উরলভ উপস্থিত ছিলেন। 

এর আগে গত জানুয়ারি মাসে রাশিয়ায় মসজিদের সংখ্যা বৃদ্ধিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। 

রাশিয়ার মোট জনসংখ্যা ১৪ কোটি ৬০ লাখের কাছাকাছি। এর মধ্যে মুসলিমের সংখ্যা দুই কোটিরও বেশি। তবে দীর্ঘ কমিউনিস্ট শাসনামলে মুসলিমদের প্রতি অত্যাচার-বৈরীতায় দেশটিতে ইসলাম ধর্মের প্রসার এক প্রকার থেমেই ছিল বলা যায় । 

দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে রাশিয়ার ধর্ম পালনের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেওয়া হয়।  

এ সময় পুতিন পৃথিবীর মুসলিম দেশগুলোর সাথে উষ্ণ সম্পর্কও গড়ে তোলেন। তারপর থেকেই রাশিয়ায় ইসলাম ধর্মের প্রসার ঘটতে শুরু করে। 

পুতিনের আমলে রাশিয়ায় ইসলাম ধর্মের প্রসারের বিষটি তুলে ধরতে গত জানুয়ারি মাসে রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় বাশকোরতোস্তান (Bashkortostan) শহরে দেশটির গ্রাণ্ড মুফতির সাথে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে পুতিন জানান, ২০০০ সালে সমগ্র রাশিয়ায় মাত্র ১৬টি মসজিদ থাকলেও বর্তমানে সেই সংখ্যা ১,২০০ তে উন্নীত হয়েছে। 
Share on Google Plus

About বার্তাকক্ষ

প্রকাশিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি।
    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment